মাত্র পাওয়া

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ

| ২৫ মার্চ ২০২০ | ৮:২৯ অপরাহ্ণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে বলেছেন, করোনাভাইরাস মোকাবিলাওএকটা যুদ্ধ, যে যুদ্ধে মানুষের দায়িত্ব ঘরে থাকা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এবারের স্বাধীনতা দিবস এক ভিন্ন প্রেক্ষাপটে উদযাপিত হচ্ছে। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে গোটা বিশ্ব এখন বিপর্যস্ত।

তিনি জনগণের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, ”আপনারা যে যেখানে আছেন, সেখানেই অবস্থান করুন।”

”স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। সকলে যার যার ঘরে থাকুন, ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন, নিরাপদ থাকুন। আমরা সকলের প্রচেষ্টায় এ যুদ্ধে জয়ী হব,” শেখ হাসিনা বলেন।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের বিস্তার ও সরকারের নেয়া নানা পদক্ষেপের মধ্যে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর মধ্যে সরকারী হিসেবে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯জন আর মারা গেছেন পাঁচজন।

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ২৬শে মার্চ থেকে শুরু করে সাপ্তাহিক ছুটির সাথে মিলিয়ে টানা ১০দিনের ছুটি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশের সরকার। এ সময় সবাইকে ঘরে থাকার আহবান জানানো হয়েছে।

”নানা দুর্যোগে-সঙ্কটে বাঙালি জাতি সম্মিলিতভাবে সেগুলো মোকাবিলা করেছে। করোনাভাইরাসও একটা যুদ্ধ। এ যুদ্ধে আপনার দায়িত্ব ঘরে থাকা। আমরা, ” জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন।

তিনি করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের নেয়া নানা পদক্ষেপের বিস্তারিত তুলে ধরেন।

”দুর্যোগের সময় মনুষত্যে পরীক্ষা হয়। এখনই সময় পরস্পরকে সহায়তা করার, মানবতা প্রদর্শনের,” তিনি বলেন।

এ সঙ্কটময় সময়ে আমাদের সহনশীল এবং সংবেদনশীল হতে হবে। কেউ সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করবেন না। বাজারে কোনো পণ্যের ঘাটতি নেই। দেশের অভ্যন্তরে এবং বাইরের সঙ্গে সরবরাহ চেইন অটুট রয়েছে। অযৌক্তিকভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি করবেন না। জনগণের দুর্ভোগ বাড়াবেন না।

শেখ হাসিনা অনুরোধ জানিয়ে বলেন, ” এখন কৃচ্ছতা সাধনের সময়। যতটুকু না হলে নয়, তার অতিরিক্ত কোন ভোগ্যপণ্য কিনবেন না। মজুদ করবেন না। সীমিত আয়ের মানুষকে কেনার সুযোগ দিন।

তিনি কৃষকদের প্রতি অনুরোধ জানান, যেন কোন জমি ফেলে না রেখে বেশি বেশি করে ফসল ফলানো হয়। মিল মালিক ও কৃষকদের ঘরে প্রচুর পরিমাণে খাদ্যশস্য মজুদ আছে বলে তিনি জানান।

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত