মাত্র পাওয়া

চিকেন বিরিয়ানির নামে ‘কাউয়া বিরিয়ানি’

| ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৭:৩৫ অপরাহ্ণ

চিকেন বিরিয়ানির নামে ‘কাউয়া বিরিয়ানি’

খাবার হিসেবে বিরিয়ানির আলাদা কদর আছে। এর প্রথম প্রচলন ভারতের দিল্লি এবং লক্ষ্মৌতে। কিন্তু সেই দেশেই কি-না বিরিয়ানি নিয়ে প্রতারণা করা হলো!

তামিলনাড়ুর রামেশ্বরমে মুরগির নামে কাকের মাংস বিক্রি করছিলেন দুই ব্যবসায়ী। আর এর দায়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকালে ওই দুই ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ১৫০টি মৃত পাখিও উদ্ধার হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুরগির মাংসের নামে কাকের মাংস বিক্রির কারবার বহুদিন ধরেই করে আসছিলেন তারা। যখন পূর্বপুরুষদের স্মরণের কথা বলে দুই ব্যক্তি কাকদের খাবার খাওয়াচ্ছিল, ঠিক তখনই একজনের সন্দেহ হয়। এরপরই এক এক করে অসংখ্য কাক মরতে শুরু করে।

পরে ওই ব্যক্তি বিষয়টি পুলিশকে জানায়। এরপর সত্যি দেখা যায়, কাকের খাবারের মধ্যে বিষ মেশানো ছিল এবং মরা কাকগুলোকেই মুরগির বলে বিক্রি করছিলেন অভিযুক্তরা।

শহরের রাস্তার ধারের বিভিন্ন খাবারের দোকানে ওই কাকের মাংস বিক্রি করতেন তারা। ফলে বেশ কয়েক মাস ধরে বিভিন্ন বিরিয়ানির দোকানেও মুরগির বলে কাকের বিরিয়ানি বিক্রি হয়েছে। আর সেই খাবারই আনন্দের সঙ্গে খেয়েছে সাধারণ মানুষ। এমন ঘটনায় পুরো এলাকায় হইচই পড়ে গিয়েছে। গ্রেফতার দুজনের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।