মাত্র পাওয়া

চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছেন কোচ জেমি ডে

| ১৫ এপ্রিল ২০২০ | ৮:৫৮ অপরাহ্ণ

চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছেন কোচ জেমি ডে

বাংলাদেশের সঙ্গে আরো ২ বছরের জন্য চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছেন কোচ জেমি ডে। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশেন (বাফুফে) জেমি ডের কাছে প্রস্তাবটি পেশ করে। নতুন প্রস্তাবে আগামী আগস্টের মাঝামাঝি সময় থেকে দায়িত্ব পালন করতে হবে ইংলিশ এই কোচকে। মৌখিকভাবে প্রস্তাব দেয়ায় শিগগিরই দুপক্ষের মধ্যে নতুন চুক্তি সই হবে। মাঝের তিন মাস জেমি কে অবশ্য চাকরি ছাড়াই অর্থাৎ বিনা বেতনে থাকতে হবে।

বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সঙ্গে জেমি ডের বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে আগামী ১৫ মে। বাংলাদেশের কোচ এখন ছুটিতে রয়েছেন ইংল্যান্ডে। বর্তমান যে পরিস্থিতি তাতে জেমি ডেও নিরুপায়, মেনে নিচ্ছেন সব কিছু। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘করোনা ভাইরাসের কারণে পুরো বিশ্বই এখন আক্রান্ত। এরমধ্যে কোনো খেলাও নেই। এখন বাফুফে যে নতুন প্রস্তাব দিয়েছে তা মেনে নিতে হচ্ছে। আশা করছি আগামী আগস্ট থেকে নতুন করে কাজে ফেরা যাবে। বর্তমান চুক্তি শেষ হওয়ার পর দুই মাস পর হবে নতুন চুক্তি। একটু কষ্ট হলেও আমি তাতে রাজী। সবসময় আর্থিক দিক দিয়ে চিন্তা করা যায় না। আর বাংলাদেশতো আমার দ্বিতীয় বাড়ি।’

তবে এই মাঝের তিন মাস অযথা বসে থাকছেন না তিনি। কোচিং কোর্সের পাশাপাশি জেমি পরিবারকেও সময় দেয়ার ইচ্ছা তার, ‘আমার উয়েফা প্রো লাইসেন্সের কোর্স চলছে। এই সময়ে কোচিং কোর্স নিয়ে আরও বেশি কাজ করব। এছাড়া নিজের পরিবারকেও সময় দিতে পারব।’

সবকিছু মেনে আরো দুই বছর লাল-সবুজদের ডাগআউটে থাকছেন এই বৃটিশ কোচ। ইংল্যান্ডে কোয়ারেন্টাইনে থেকেও বাংলাদেশকে নিয়ে পরিকল্পনা করছেন জেমি। সামনের দুবছরে র‌্যাঙ্কিংয়ে কমপক্ষে ৩০ ধাপ উন্নতি চান জেমি ডে। বোনাস হিসেবে চাইছেন সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা।

করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আনুষ্ঠানিকভাবে জেমির সঙ্গে তিন মাস পরে চুক্তি (নবায়ন) করতে চাইছে বাফুফে। এটা মেনে নিয়েই একমত হয়েছেন জেমি। তিনি বলেন, ‘চুক্তি নবায়নের ব্যাপারে দুপক্ষের সম্মতির ভিত্তিতেই হয়েছে। ছোটখাটো বিষয়ে একমত হলে নতুন চুক্তি করে ফেলব আমরা। বাংলাদেশের সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদে কাজ করার ইচ্ছা ছিল সেটা পূরণ হচ্ছে। পরিচিত এই দলে ফেরার অপেক্ষায় আছি।’

চুক্তি তিন মাস পেছানোর কারণ হিসেবে বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে আপাতত জাতীয় দলের কোনো খেলা নেই। বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব শুরু হতে পারে এই বছরের শেষের দিকে। এই মুহূর্তে কোচকে বসিয়ে রেখে বেতন দেয়া আমাদের জন্য কঠিন। তাই আমরা আগামী আগস্টের মাঝামাঝি সময় থেকে তাকে নতুন করে পেতে চাইছি। এমন প্রস্তাবই তাকে দেয়া হয়েছে।

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০