মাত্র পাওয়া

শ্রীপুরে ঠিকানার ভুলে সাড়ে ৬ বছর মামলার ঘানী টানছেন দিনমুজুর

| ১৪ নভেম্বর ২০২২ | ৫:৫৪ অপরাহ্ণ

শ্রীপুরে ঠিকানার ভুলে সাড়ে ৬ বছর মামলার ঘানী টানছেন দিনমুজুর

 শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ
পেশায় মুটে(কুলি) শ্রমিক মিজান। একটি হ্যাচারীতে মুটের চাকুরি করতেন। ২০১৭ সালে গায়েবী মামলায় গ্রেফতার হন মিজান। ৬দিন হাজত বাস করে জামিনে অসেন। পরে জানতে পারেন অন্য গ্রামের একটি মামলায় নিজ নাম ও বাবার নাম মিল রয়েছে, সে মামলায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছিলো। ৬দিন হাজতে থেকে জামিনে আসেন। গত সাড়ে ৬ বছর যাবৎ ওই মিথ্যা মামলার ঘানি টানছেন মিজান। টাকার অভাবে নিয়মিত হাজির হননি আদালতে। জামিন না থাকায় পরোয়ানা মূলে পুলিশ ৬ নভেম্বর পুনরায় তাকে গ্রেফতার করে। অভিযোগপত্রে গ্রামের নামের ভুলের কারণে দু’বার হাজতে যান মিজান। ভুল ঠিকানার কারণে তিনি এখন মামলার আসামী। সাজা হওয়ার শঙ্কায় দিন পার করছে দিনমুজুর মিজান । ভুক্তভোগী মুটে শ্রমিক মিজান গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার পৌর এলাকার উজিলাব গ্রামের মো. আলাউদ্দিনের ছেলে (৪০)। অপরদিকে মামলার বাদী উপজেলার বরমী ইউনিয়নের বরামা গ্রামের মৃত ফজর আলীর ছেলে মোহাম্মদ আলী (৮০)। মামলার অভিযুক্তরা হলো মোহাম্মদ আলীর প্রতিবেশী বরামা গ্রামের মৃত আ.ছালামের ছেলে আ.খালেক (৪৫),আ.খালেকের ছেলে রাজিব(২১)ও শরিফ(৩০),একই গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে মিজান(৪০)ও সারফুল (৩৫)এবং পেলাইদ চড়পারা গ্রামের ওয়াজ উদ্দিনের ছেলে জাহাঙ্গীর (২৮)।
মামলার সূত্রে জানা যায়, বাদী মোহাম্মদ আলীর সাথে বরামা গ্রামের প্রতিবেশী আ.খালেকদের পারিবারিক ও জমিসংক্রান্ত বিরোধ ছিল। দু’পক্ষের ঝগড়ার প্রেক্ষিতে মোহাম্মদ আলী শ্রীপুর থানায় ৪৯(৩)১৬ নং মামলা দায়ের করেন। মামলার অভিযোগ ও এফআইআরে মামলার ৫ ও ৬ নং আসামীর নাম ঠিকানা সঠিক ছিল। প্রায় সাড়ে আটমাস পর পুলিশ মামলার ৬ আসামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ পত্র দাখিল করে। এতেই
ঘটে বিপত্তি। মামলার ৫ নং আসামী মিজান ও ৬ নং আসামী সারফুলের বাড়ি বরামা গ্রামে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ওই সময়ের শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক মো. হাফিজুর রহমান অভিযোগ পত্রে ৫ ও ৬ নং আসামীর গ্রাম বরামার পরিবর্তে উজিলাব উল্লেখ করেন।
নামে নামে জমে টানে মিজানকে। অভিযোগ পত্রে নিজ নাম, বাবার নামের সাথে ঠিকানা বরামা গ্রামের স্থলে উজিলাব উল্লেখ করেন। এতে পুলিশ ২০১৭ সালে বরামা গ্রামের মিজানের পরিবর্তে উজিলাব গ্রামের মিজানকে গ্রেফতার করেন।
মিজানের আইনজীবি এ্যাড.মো.কাজী আলম বলেন, মিজান দীর্ঘদিন আদালতে হাজির হননি। তার অনুপস্থিতিতে চার্জ গঠন হয়েছে। এ মুহুর্তে মামলা থেকে তাকে অব্যাহতির কোন সুযোগ নেই। আদালতে রায়ের মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তি হবে।

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

Calendar

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮  

এক ক্লিকে বিভাগের খবর

div1 div2 div3 div4 div5 div6 div7 div8